অনেক রহস্যজনক ভাবে নতুন তিন আইফোনের ঘোষণা দেবে অ্যাপল

0
2

অ্যাপলপ্রেমীরা প্রতিবছর নতুন আইফোনের অপেক্ষায় থাকেন। সেপ্টেম্বর মাস এলেই তাঁদের প্রত্যাশা বেড়ে যায়। এ মাসেই যে নতুন আইফোনের ঘোষণা দেয় মার্কিন প্রযুক্তিপণ্য নির্মাতা প্রতিষ্ঠানটি। আজ ১২ সেপ্টেম্বর অ্যাপলের সেই পণ্য ঘোষণার দিন। বাজার বিশ্লেষকেরা ধারণা করছেন, আজ রাতে সবার চোখ থাকবে ক্যালিফোর্নিয়ায়। সেখানকার স্টিভ জবস থিয়েটারে আইফোনসহ নতুন কিছু পণ্যের ঘোষণা দিতে পারে মার্কিন প্রতিষ্ঠানটি।

ভারতের এনটিভি অনলাইনের তথ্য অনুযায়ী, বাংলাদেশ সময় রাত ১০টার দিকে অ্যাপলের পণ্য ঘোষণার ওই অনুষ্ঠান শুরু হবে। অনুষ্ঠানের মূল আকর্ষণই থাকে আইফোনের ঘোষণা।

নতুন আইফোন ঘিরে দীর্ঘদিন ধরেই প্রযুক্তি বিশ্বে নানা গুঞ্জন রয়েছে। বিশ্লেষকেরা মনে করছেন, এ বছর নতুন তিনটি মডেলের আইফোনের ঘোষণা দেবেন অ্যাপলের প্রধান নির্বাহী টিম কুক। এর বাইরে আইপ্যাড প্রো, বড় ডিসপ্লের অ্যাপল ওয়াচ, রেটিনা ডিসপ্লের ম্যাকবুক এয়ার, নতুন ম্যাক মিনি ডেস্কটপ কম্পিউটার ও এয়ার পাওয়ার ওয়্যারলেস চার্জারের ঘোষণা আসতে পারে।

অ্যাপল জানিয়েছে, ১২ সেপ্টেম্বর স্থানীয় সময় সকাল ১০টায় অনুষ্ঠানটি শুরু হবে।

অ্যাপলের এ বার্ষিক অনুষ্ঠান অত্যন্ত আকর্ষণীয় হয়ে থাকে। কারণ, পুরো অনুষ্ঠান ঠাসা থাকে নতুন নতুন পণ্য ও হালনাগাদ প্রযুক্তির চমকে। বলা হচ্ছে, ১২ সেপ্টেম্বরের অনুষ্ঠানে নতুন তিনটি আইফোন, একটি নতুন মডেলের ম্যাকবুক এয়ার এবং ম্যাক মিনির হালনাগাদ সংস্করণ উন্মোচিত হবে। দেখা যাবে নতুন অ্যাপল ওয়াচও।

ধারণা করা হচ্ছে, এবারে যে আইফোন বাজারে আসবে, তা গত বছর ঘোষণা দেওয়া আইফোন এক্সের মতো। এর মধ্যে একটি হবে ৫ দশমিক ৮ ইঞ্চি মাপের ওএলইডি ডিসপ্লের। এটি আইফোন এক্সের পরবর্তী সংস্করণ। এর নাম হতে পারে আইফোন এক্সএস। এ ছাড়া ওএলইডি ডিসপ্লেসহ সাড়ে ছয় ইঞ্চি মাপের একটি নতুন আইফোন আসবে। এর নাম হতে পারে আইফোন এক্সএস ম্যাক্স। দুটি ওএলইডি ডিসপ্লের আইফোনের সঙ্গে একটি এলসিডি ডিসপ্লের আইফোনের ঘোষণা দিতে পারে অ্যাপল। এতে থাকবে একটি ৬ দশমিক ১ ইঞ্চি মাপের এলসিডি ডিসপ্লে। স্টেনলেস স্টিলের পরিবর্তে এই ফোনের পাশে থাকবে অ্যালুমিনিয়াম ফ্রেম। তবে অনেকে বলছেন, ফোনের নাম হতে পারে আইফোন ৯। আবার কেউ বলছেন, আইফোন এক্সআর নামে বাজারে আসতে পারে নতুন আইফোন।

[X]

এনগ্যাজেট বলছে, নতুন তিনটি আইফোন হতে পারে আইফোন ৯, আইফোন ১১ ও আইফোন ১১ প্লাস।

নতুন আইফোন সম্পর্কে আগেভাগে অবশ্য আনুষ্ঠানিক কোনো কথা বলেনি অ্যাপল কর্তৃপক্ষ।

ধারণা করা হচ্ছে, ৬৯৯ থেকে ৭৪৯ মার্কিন ডলারের মধ্যে এলসিডি ডিসপ্লের নতুন আইফোন বাজারে আসবে। তবে সম্প্রতি এক প্রতিবেদনে জানানো হয়, নতুন আইফোনের দাম হতে পারে ৮৪৯ মার্কিন ডলার।

বাজার গবেষণা প্রতিষ্ঠান ট্রেন্ডফোর্সের এক প্রতিবেদনে বলা হয়, আইফোনের এলসিডি সংস্করণটির দাম বড়জোর ৬৯৯ মার্কিন ডলার হতে পারে। তবে বাড়তি ফিচারযুক্ত ফোনটির মডেলের দাম ৭৪৯ মার্কিন ডলার পর্যন্ত যেতে পারে। এ মডেলটি সাশ্রয়ী হবে বলে জানিয়েছিল ট্রেন্ডফোর্স। বাজার বিশ্লেষক প্রতিষ্ঠানটির পূর্বাভাস অনুযায়ী, ওএলইডি সংস্করণগুলোর দাম ৮৯৯ থেকে ৯৪৯ মার্কিন ডলারে মধ্যে থাকবে। এর আগে বিশ্লেষক মিং শি কুয়ো পূর্বাভাস দিয়েছিলেন, এলসিডি মডেলটির দাম ৬০০ থেকে ৭০০ ডলার হবে। অনেক ক্ষেত্রে কুয়োর পূর্বাভাস ফলে যেতে দেখা গেছে।

আইফোনের তিনটি সংস্করণের মধ্যে সবচেয়ে আলোচনায় এসেছে ৬ দশমিক ১ ইঞ্চি মাপের এলসিডি মডেলটি। সম্প্রতি ফোনটি ঘিরে নানা তথ্য ফাঁস হতে দেখা যায়। ধারণা করা হচ্ছে, ফোনটি আইফোন ৫ সির মতো হতে পারে।

গত বছরে সেপ্টেম্বর মাসে ঘোষণার পরে নভেম্বর মাসে বিক্রি শুরু হয়েছিল আইফোন এক্স। এ বছর ঘোষণার সঙ্গে সঙ্গে নতুন আইফোন বিক্রি শুরু করবে অ্যাপল।

নতুন তিনটি আইফোনের সঙ্গে বাজারে আসতে পারে আইপ্যাড প্রো। এবারে প্রথমবারের মতো আইপ্যাডে বেজেল লেস ডিসপ্লে আর ফেস আনলক ফিচার দেখা যাবে। এ ছাড়াও বাজারে আসবে নতুন রেটিনা ডিসপ্লের ম্যাকবুক এয়ার। এত দিন শুধু ম্যাকবুক প্রো সিরিজে রেটিনা ডিসপ্লে ব্যবহার হচ্ছিল। প্রথমবার অ্যাপলের হালকা-পাতলা ম্যাকবুক এয়ার সিরিজে রেটিনা ডিসপ্লে থাকবে। একই সঙ্গে বাজারে আসবে নতুন ডেস্কটপ কম্পিউটার ম্যাক মিনি। এ ছাড়া প্রথমবার এজ-টু-এজ ডিসপ্লেসহ বাজারে আসবে নতুন অ্যাপল ওয়াচ।

গুঞ্জন আছে, নতুন আইপ্যাডের ডিসপ্লে তুলনামূলক বড় হবে। আর অ্যাপল ওয়াচের নতুন মডেলের স্ক্রিন বড় হওয়ার পাশাপাশি বেজেল হবে ছোট। দ্য ভার্জের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, নতুন ম্যাকবুক এয়ার আগের চেয়ে সাশ্রয়ী হবে, থাকতে পারে রেটিনা ডিসপ্লে।

NO COMMENTS

LEAVE A REPLY