নোয়াখালীতে মৃত্যুর গুজবে বেদেপল্লিতে তাণ্ডব

0
45

সোমবার পূর্ব এওজবালিয়া গ্রামে ঘটনা থামাতে পুলিশ ৭০ রাউন্ড ফাঁকা গুলি ছোড়ে বলে জানান সুধারাম মডেল থানার ওসি আনোয়ার হোসেন।

প্রত্যক্ষদর্শীর বরাত দিয়ে আনোয়ার বলেন, গত শুক্রবার বেদেপল্লির এক কিশোরী স্থানীয় একটি দোকানে আইসক্রিম কিনতে গেলে দোকানি তাকে অশালীন মন্তব্য করেন। এ নিয়ে বেদেদের সঙ্গে দোকানি ও স্থানীয় লোকজনের বাকবিতণ্ডা হয়। এক পর্যায়ে তাদের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

“এদিকে এলাকায় তারেকের মৃত্যুর গুজব ছড়িয়ে পড়লে তার স্বজন ও এলাকাবাসী বেদেপল্লিতে হামলা চালায়।”

বেদে সর্দার ওয়াসিম অভিযোগ করেন, গত ছয় বছর থেকে শতাধিক বেদে পরিবার এই গ্রামে স্থায়ীভাবে বসবাস করছে। বখাটেরা প্রায়ই তাদের কিশোরীদের বিরক্ত করে।

[X]

তিনি বলেন, সোমবারের ঘটনায় তাদের ৩২টি টিনের ঘর, ১০টি তাবু ও ২৫টি খুপরি ঘরে ভাঙচুর ও লুটপাট চালানো হয়েছে। ১১টি ঘর ও ১১০টি সাপ পুড়ে গেছে।

এছাড়া হামলায় তাদের পল্লির ছয় জন আহত হয়েছে। ঘটনার পর থেকে শরীফ ও সুমন নামে দুই শিশুর সন্ধান মিলছে না বলেও অভিযোগ করেন তিনি।

ওসি আনোয়ার বলেন, সংসদ সদস্য তার ব্যক্তিগত তহবিল থেকে ক্ষতিগ্রস্তদের ৫৫ হাজার টাকা অনুদান দিয়েছেন।

“এছাড়া জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে ক্ষতিগ্রস্তদের পাঁচ বস্তা চাল তাৎক্ষণিক বরাদ্দ দেওয়া হয় এবং মঙ্গলবার সকালের মধ্যে পাঁচ টন চাল পাঠানো হবে বলে জানানো হয়।”

এ সময় জেলা প্রশাসক ঘটনার সঙ্গে জড়িতদেরকে চিহ্নিত করে দ্রুত গ্রেপ্তার এবং বাড়িঘর মেরামতের জন্য ঢেউটিন প্রদানসহ সব ধরনের সহায়তার আশ্বাস দেন।

বড় ধরনের সংঘাত এড়াতে এলাকায় অস্থায়ী পুলিশ ক্যাম্প স্থাপন করা হয়েছে বলেও জানান তিনি।

NO COMMENTS

LEAVE A REPLY